আসছে ইউটিউবের বিকল্প এমাজনটিউব!

গুগলের সাথে এমাজনের শত্রুতা এখন আর গোপনীয় কোন বিষয় নয়। সম্প্রতি এমাজন ‘এমাজনটিউব’ এবং ‘ওপেনটিউব’ নামে দুটি ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করেছে যার প্রেক্ষিতে মোটামুটি নিশ্চিত করেই বলা যায় যে, ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফরম নিয়ে খুব দ্রুতই ইউটিউবকে ধাক্বা দিতে আসছে এমাজন। গত সেপ্টেম্বরে গুগল এমাজনের ইকো শো নামে একটি সার্ভিস ইউটিউবে ষ্ট্রিমিং ব্লক করে দেয় এবং কয়েক সপ্তাহ আগে তা আরো এক ধাপ এগিয়ে এমাজন ফায়ার টিভি সার্ভিস থেকে ইউটিউবকে প্রত্যাহার করে নেয়। এর আগে এমাজন তাদের প্রোডাক্ট থেকে গুগলের ক্রোমকাষ্ট এবং গুগল হোমকে বের করে দেয়, এমনকি যেসব আগের প্রোডাক্টে এই সার্ভিসগুলো ছিলো সেগুলো বিক্রি বন্ধ করে দেয়। সব কিছু মিলিয়ে একটি টেকি যুদ্ধে পরিণত হয়। এরই মধ্যে ইউএসএ পেটেন্ট বিভাগে এমাজনটিউব এবং ওপেনটিউব এর পেটেন্ট ডিজাইন ও ট্রেডমার্ক রেজিষ্ট্রেশন করা হয়ে গেছে। যেখানে প্রোডাক্ট বা সার্ভিস দুটিকে “non-downloadable pre-recorded audio, visual and audiovisual works via wireless networks.” হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। যেহেতু পেটেন্ট ডিজাইন হয়ে গেছে তাই বলা চলে যে, ইউটিউবের শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবে আসতে যাচ্ছে এমাজনটিউব। মজার বিষয় হচ্ছে এমাজনটিউবের রেজিষ্ট্রেশন হয় 13/07/1998 তারিখে। এমাজনের অফিশিয়াল সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, নতুন প্লাটফরমটিতে ইমেজ, ভিডিও, টেক্সট, ডাটা এবং ইলেকট্রনিক্স কাজকর্ম সবকিছু শেয়ার করা যাবে, যার মুল অংশে থাকবে ভিডিও শেয়ারিং যেটা অনেকটাই ইউটিউবের মতো তবে তার চেয়ে কিছুটা বেশী। এছাড়াও এমাজন AlexaOpenTube.com, AmazonAlexaTube.com এবং AmazonOpenTube.com নামে আরো কিছু ডোমেইন নেম রেজিষ্ট্রেশন করেছে বলে DomainNameWire এর দেয়া তথ্যানুযায়ী জানা গেছে। “Amazontube” বা “Opentube” নাম দুটির কারণে আইনগত ঝামেলা হতে পারে বলেই এমাজন কিছু বিকল্প ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করে রেখেছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

আমি ব্যক্তিগতভাবে এমাজনের অনেকগুলো ভিডিও ষ্ট্রিমিং সংক্রান্ত সার্ভিস ব্যবহার করে দেখেছি যে তাদের সার্ভিস আসলেই ভালো, যদিও কিছুটা দামে বেশী। এছাড়া গুগলের মতোই তাদের যে আরো কতোশত সার্ভিস আছে তা বলাই বাহুল্য। আর এমাজন থেকেই ইতোমধ্যে যেহেতু অনেকেই অর্থ উপার্জন করছেন তাই অর্থ সংক্রান্ত কোন নতুন বিষয় চালু করতে এমাজনকে খুব একটা বেগ পেতে হবে বলে মনে হয়না। ইউটিউবের বর্তমান কড়াকড়িতে অনেক ক্রিয়েটরই এমাজন যদি নতুন কোন সার্ভিস নিয়ে আসে তাহলে তার প্রতি ঝুঁকবে, এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়। কিন্তু কপিরাইট এর বিষয়গুলো এমাজন কিভাবে পরিচালনা করবে তাই সম্ভবত একটি বড় বাধা এখনো এমাজনের সামনে। নিকট ভবিষ্যতই বলে দেবে যে গুগল আর এমাজনের শত্রুতা আমরা কতোটুকু উপভোগ করতে পারবো।

নোট: লোগোটি কাল্পনিক। এখনো এমাজনটিউবের লোগো উন্মোচিত হয়নি।

Collected



টেকহাব এর সাথে থাকবেন। কপিরাইট © ২০১৭ | প্রকাশিত লেখাসমুহ টেকহাব.কম.বিডি দ্বারা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুগ্রহপূর্বক অনুমতি ব্যতীত এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না করলে আইনত ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে, ধন্যবাদ।

Author: UDOY

Hlw,I am Udoy Saha Abir.

Leave a Reply

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here