techhub bd

অষ্টম শ্রেণীতে অনুত্তীর্ণ ছেলেটিই আজ সাইবার ক্রাইম বিশেষজ্ঞ

নোবেল পেলেও বিদ্যালয়ের গন্ডী পেরোতে পারেননি রবীন্দ্রনাথ৷ তবু তাঁর খ্যাতি আজও বিশ্বজুড়ে৷ তেমনই আরও এক কিংবদন্তীর হদিশ পেল মুম্বই৷ ২৩ বছরের এই যুবক সাহিত্যজগতে হয়তো পারদর্শী নয়৷ কিন্তু সাইবার দুনিয়ায় তাকে টেক্কা দিতে গেলে হিমশিম খাবেন জাঁদরেল সাইবার বিশেষজ্ঞরাও৷ মাত্র ২৩বছর বয়সেই তৃষিত অরোরা দেশে বিদেশে নিজের অফিসও খুলে ফেলেছে সে৷ একদিকে সে যেমন পাঞ্জাবের তথ্যপ্রযুক্তির অফিসে উপদেষ্টা বিভাগের সদস্য৷ অপরদিকে আবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের দুঁদে পুলিশ অফিসারদেরও ট্রেনিংও দেয় সে৷ দেশের পাশাপাশি দুবাইয়েও একটি কোম্পানির মালিক তৃষিত৷

তবে তার এই সাইবার জগতের শুরুটা কিন্তু এত সহজ ছিলনা৷ একদিকে তার সহপাঠীরা যখন পরীক্ষায় ভালো রেজাল্টের মোহতে ছুটছে৷ তখন অপরদিকে পরীক্ষার খাতায় তার জুটতো শুধু লাল কালির দাগ৷ বইয়ের দুনিয়ার থেকে সে ছিল সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন৷ খেলাধুলাতেও তার তেমন কোনও আগ্রহ ছিলনা৷ তার ছোটবেলাটা কম্পিউটার, মেশিন এসব নিয়েই কেটে যেত৷ সে জানিয়েছে, তার এই কম্পিউটারের নেশা কাটানোর জন্য তার বাবা প্রায়ই মেশিনের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে দিতেন৷ কিন্তু দিনের শেষে ঠিক সেই পাসওয়ার্ডটা উদ্ধার করত তৃষিত৷ এরপর থেকেই তার পরিবারের লোকজনও খুব একটা বাধা হয়ে দাড়ায়নি তার স্বপ্নপূরনের পথে৷
এরপর আস্তে আস্তে শুরু হয় তার পথচলা৷ সে জানায়, একটা ছোট্ট প্রোজেক্ট দিয়েই সে শুরু করেছিল তার স্বপ্নের দুনিয়া৷ এরপর ১৯বছরেই কম্পিউটার সাড়ানোর কাজ, সফটওয়ারের কাজ করে প্রায় ৬০,০০০ টাকার মাইনে পায় সে৷ তার নিজের পরিচয় জানতে চাইলে সে জানায়, তিনি একজন হ্যাকার৷ সাইবারের হ্যাকিং সংক্রান্ত সমস্ত ত্রুটিগুলির কারণ খুঁজে বের করে সে৷
সবশেষে তৃষিত তার মা বাবাকে ধন্যবাদ দিতে কিন্তু ভুলে যায়নি৷ তৃষিত জানিয়েছে অষ্টম শ্রেণীতে স্কুলের ফাইনাল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পারলেও তার বাবা মা কিন্তু কোনওদিন তাকে ধমক দেয়নি৷ এমনকি তাকে পড়াশুনার জন্য জোড়ও করেনি৷ বরং নিজের ইচ্ছেমতনই তৃষিতকে চলতে দিয়েছিল তার মা বাবা৷ তাই হয়তো তৃষিতের নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস আরও বেড়ে গেছিল৷ সে তার নিজের লক্ষে এগিয়ে যেতে পেরেছে সমস্ত বাধা বিঘ্ন অতিক্রম করে৷



  • টেকহাব এর সাথে থাকবেন। কপিরাইট © ২০১৭ | প্রকাশিত লেখাসমুহ টেকহাব.কম.বিডি দ্বারা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুগ্রহপূর্বক অনুমতি ব্যতীত এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না করলে আইনত ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে, ধন্যবাদ।

Author: UDOY

Hlw,I am Udoy Saha Abir.

Leave a Reply

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here