গ্রাফিক্স ডিজাইন টিউটোরিয়াল কালার কম্বিনেশন



যেকোন ডিজাইন এর ক্ষেত্রে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পার্ট হল টাইপোগ্রাফি আর কালার কনসেপ্ট… .
বিজনেস কার্ড হোক কিংবা পিএসডি অথবা ওয়েব টেম্পলেট…আমরা আবার আরেকটু গবেষণা করি এসব নিয়ে…

কালার কম্বিনেশন
০১) ডিজাইন করার সময় আমরা দুটোকালার অলটাইম সিলেকশন এ রাখবো। সাদা আর কালো। .

০২) এই সাদা কালো, রঙদুটোকেই ডিজাইন এবং চোখের সহ্য ক্ষমতা আই মিন চোখের আরামের উপর ভিত্তি করেএদের গারত্ব কমিয়ে বাড়িয়ে ব্যবহার করে যেতে পারে। লাইক : সলিড কালো এরকালার কোড #000, আবার কালো এর অন্য শেড এর কোড #232323। প্রয়োজনমত তাপ্রয়োগ করা লাগবে।

০৩) সাথে একটি বেইজ কালার মানে প্রধান কালার রাখালাগবে যা শুধু প্রধান প্রধান ক্ষেত্রগুলোকে ফুটিয়ে তুলবে।

০৪) এই প্রধানকালারের উপর ডিপেন্ড করে আমরা আইকন কালার কিংবা সেকশন কালার কিংবা ফন্টকালার ডিজাইনের সুবিধার্থে ব্যবহার করব।

০৫) প্রায়ই দেখা যায় টাইটেল ফন্টকালার একটু বোল্ড আই মিন ডার্ক কালার আর প্যারাগ্রাফ কালার টা আরেকটুহাল্কা কালার ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

০৬) ব্যাকগ্রাউন্ড কালার দেয়ার পরখেয়াল রাখা লাগবে আপনার ফন্ট এর কালার টা তার উপর ম্যাচ করে কিনা। . লাইকব্যাকগ্রাউন্ড কালার “সাদা” আপনি ফন্ট কালার ও সাদা কিংব তার কাছাকাছুদিলেন তাতে বুঝাই যাচ্ছেনা কিংবা “লাল” কালার ব্যাকগ্রাউন্ড এর মধ্যে দিলেন ” নীল” কালার ফন্ট তাতে লেখাগুলো পড়তে কষ্ট হয় আর বুঝাও যায়না। এরকম কিছুএড়িয়ে যাবার চেষ্টা করতে হবে।

০৭) কালারের ব্যাপারগুলো বুঝার জন্য অনেকডিজাইন দেখা বাঞ্ছনীয়।

—————————————————————————————————————————

টেকহাব এর সাথে থাকবেন। কপিরাইট © ২০১৭ | প্রকাশিত লেখাসমুহ টেকহাব.কম.বিডি দ্বারা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুগ্রহপূর্বক অনুমতি ব্যতীত এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না করলে আইনত ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে। ধন্যবাদ।

Author: UDOY

Hlw,I am Udoy Saha Abir.

Leave a Reply

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here