আসা করি সবাই ভালো আছেন আগের পোস্ট থেকে জেনেছেন  সি ভেরিয়েবল এবং কন্সট্যান্ট

প্রোগ্রামিং সি নিয়ে আমাদের সিরিজ পোস্ট চলছে জানেন আসা করি এই সিরিজ পোস্ট দেখলে আপনি নিজে ই প্রোগ্রামিং করতে পারবেন


আজকের পোস্ট এর টপিক ঃ সি প্রোগ্রামিং ডেটা টাইপ

প্রোগ্রামিং সি তে, প্রোগ্রাম এর মধ্যে ভেরিয়েবল ব্যবহার করার আগেই ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার করতে হয়। ডেটা টাইপ হল সেই সকল কী-ওয়ার্ড,যে গুলো ব্যবহার করা হয় ভেরিয়েবল গুলো কোন টাইপ এর সেটা নির্ধারন করার জন্য।
ফান্ডামেন্টাল বা প্রাথমিক ডেটা টাইপ(Fundamental Data Types)

১। ইন্টিজার টাইপ (Integer types)
২। ফ্লোটিং টাইপ (Floating Type)
৩। ক্যারেক্টার টাইপ (Character types)
ডিরাইভড ডেটা টাইপ (Derived Data Types)
১। অ্যারে (Arrays)
২। পয়েন্টার(Pointers)
৩। স্ট্রাকচার(Structures)
৪। ইনিউমেরাসন (Enumeration)
ডেটা টাইপ ও ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার এর সিনটেক্স:
data_type variable_name;

ইন্টিজার ডেটা টাইপ (Integer Data types):
ইন্টিজার(integer) টাইপ ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার করার জন্য int কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়।
যেমন : int var1;
এখানে var1 হল একটা int টাইপ ভেরিয়েবল।
int টাইপ ভেরিয়েবল এর সাইজ ২ বাইট(পুরাতন কম্পিউটার এ) অথবা ৪ বাইট। যদি একটা ইন্টিজার এর সাইজ ৪ বাইট= ৩২ বিট হয় তবে এটা ২^৩২ এর সমান সংখ্যা নিতে পারে। একই ভাবে ২ বাইট এর ক্ষেত্রে ২^১৬ এর সমান সংখ্যা নিতে পারবে। ইন্টিজার টাইপ এর মধ্যে যদি আমরা ২^৩২ এর বড় এবং -২^৩১ এর ছোট কোন সংখ্যা নিতে চাই তাইলে প্রোগ্রাম সঠিক ফলাফল দিবে না।

ফ্লোটিং টাইপ (Floating Types):
রিয়েল নাম্বার/ দশমিক সংখ্যা সংরক্ষণ করার জন্য ফ্লোটিং টাইপ ভেরিয়েবল ব্যবহার করা হয়। যেমন: ২.৩৪, -৯.৩৮২ ই্ত্যাদি । ফ্লোটিং টাইপ ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার করার জন্য float অথবা double কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়। উদাহরণ সরূপ:
float var2;
double var3;
এখানে var2 এবং var3 দুইটাই ফ্লোটিং টাইপ ভেরিয়েবল প্রোগ্রামিং সি তে ভেরিয়েবল গুলির মানগুলো সাইন্টিফিক ফর্মেও লেখা যায়। যেমন : float var3= 22.442e2;
ফ্লোট(float ) এবং ডাবল(double ) এর মধ্যে পার্থক্য :
সাধারণত ফ্লোট এর সাইজ হয় ৪ বাইট এবং ডাবল এর সাইজ হয় ৮ বাইট। শুধু ফ্লোটিং পয়েন্ট ভেরিয়েবল দশমিক এর পর ৬ টি সংখ্যা দেখাতে পারে আর ডাবল ১৪ টি সংখ্যা পর্যন্ত দেখাতে পারে।

ক্যারেক্টার টাইপ(Character Types):

ক্যারেক্টার টাইপ ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার করার জন্য char কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়। যেমন: char var4= ‘h’; এখানে var4 হল ক্যারেক্টার টাইপ ভেরিয়েবল যা h ক্যারেক্টারটি সংরক্ষণ করে। char এর সাইজ হল ১ বাইট। ক্যারেক্টার ডেটা টাইপ ASCII ক্যারেক্টারস দ্বারা গঠিত। ASCII তে প্রতিটি ক্যারেক্টার এর মান নির্দিষ্ট করে দেওয়া আছে। যেমন ,

For, ‘a’, value =97
For, ‘b’, value =98
For, ‘A’, value =65
For, ‘&’, value =33
For, ‘2’, value =49

ইন্টারনেট থেকে আপনারা প্রোগ্রামিং সি তে ব্যবহৃত সবগুলা ASCII ক্যারেক্টার দেখে নিতে পারেন।

কোয়ালিফায়ারস (Qualifiers) :
কোয়ালিফায়ারস মূল ডেটা টাইপ কে একটি নতুন ডেটা টাইপ এ রুপান্তরিত করে।
সাইজ কোয়ালিফায়ারস(Size qualifiers):

সাইজ কোয়ালিফায়ার প্রাথমিক ডাটা টাইপস এর সাইজ পরিবর্তন করে। সাইজ কোয়ালিফায়ারস এর ২ টা কী-ওয়ার্ড হল long এবং short। যেমনঃ long int i;

int এর সাইজ সাধারণত ২ বাইট অথবা ৪ বাইট, কিন্তু যখন long কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয় তখন ওই ভেরিয়েবল টা ৪ বাইট অথবা ৮ বাইট সাইজ এর হয়। যদি অনেক বড় সাইজ আর ভেরিয়েবল ব্যবহার আর দরকার না হয় তখন short কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা যায়, যে পদ্ধতি তে long কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয় সেই একই পদ্ধতিতে।

সাইন কোয়ালিফায়ারস(Sign qualifiers):

একটা ভেরিয়েবল শুধু পজেটিভ মানই বহন করতে পারবে, নাকি উভয় মান ই বহন করতে পারবে সেটা সাইন কোয়ালিফায়ারস দ্বারা নির্দিষ্ট করা হয়। সাইন কোয়ালিফায়ারস এর জন্য signed এবং unsigned কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়।

যেমন: unsigned int a;
unsigned ভেরিয়েবল শুধু জিরো এবং পজেটিভ মান বহন করতে পারে। সাইন কী-ওয়ার্ড দ্বারা কোনো ভেরিয়েবল ডিফাইন করার দরকার নাই ভেরিয়েবল ডিফল্ট ভাবেই চিন্হিত হয়। শুধু মাত্র int এবং char ডাটা টাইপ এই সাইন কোয়ালিফায়ারস এর ব্যবহার করা হয়। ৪ বা ৮ বাইট সাইজ এর একটা int ভ্যারিয়েবল -২^৩১ থেকে২^৩১-১ পর্যন্ত সংখ্যা ধারণ করতে পারে, কিন্তু যদি এই ভেরিয়েবল তটা unsigned হিসেবে ডিফাইন করা হত তাহলে এটা শুধু ০ থেকে ২^৩২-১ পর্যন্ত সংখ্যা ধারণ করতো।

কন্সট্যান্ট কোয়ালিফায়ারস( Constant qualifiers):
কন্সট্যান্ট কোয়ালিফায়ারস ডিক্লেয়ার করা যায় const কী-ওয়ার্ড দিয়ে। যদি কোনো কিছু const দ্বারা ডিক্লেয়ার করা হয় সেটা আর পরিবর্তন করা যায় না।

যেমন: const int p=20;

এটা দ্বারা বোঝায় যে p এর মান প্রোগ্রাম আর মধ্যে আর পরিবর্তন করা যাবে না।

ভোলাটাইল কোয়ালিফায়ারস (Volatile qualifiers):

একটা ভেরিয়েবল কেবল তখনই ভোলাটাইল কোয়ালিফায়ারস হিসেবে ডিক্লেয়ার করা যেতে পারে যখন ওই ভেরিয়েবল এর মান প্রোগ্রাম এর বাইরের কোনো বহিরাগত সোর্স দ্বারা পরিবর্তন করা যায়. ভোলাটাইল ভেরিয়েবল নির্দেশ করার জন্য volatile কী-ওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়।



সি প্রোগ্রামিং সিরিজ



পর্ব ১ ঃ  প্রোগ্রামিং সি পর্ব ০১ – প্রাথমিক ধারণা



পর্ব ২ ঃপ্রোগ্রামিং সি বাংলা পর্ব ০২ – প্রথম প্রোগ্রাম


পর্ব ২ ঃ প্রোগ্রামিং সি বাংলা পর্ব ০৩ -সি কিওয়ার্ড এবং আইডেন্টিফায়ারপ্রোগ্রামিং সি বাংলা পর্ব ০২ – প্রথম প্রোগ্রাম


পর্ব ৩ ঃসি কিওয়ার্ড এবং আইডেন্টিফায়ার



পর্ব ৪ : সি ভেরিয়েবল এবং কন্সট্যান্ট


পর্ব ৫ : সি ভেরিয়েবল এবং কন্সট্যান্ট

টেকহাব এর সাথে থাকবেন। কপিরাইট © ২০১৭ | প্রকাশিত লেখাসমুহ টেকহাব.কম.বিডি দ্বারা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুগ্রহপূর্বক অনুমতি ব্যতীত এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না করলে আইনত ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে। ধন্যবাদ।

Author: UDOY

Hlw,I am Udoy Saha Abir.

Leave a Reply

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here